Satkahon – সবজান্তা তিন্নি -গল্প-১২ | আমি অকৃতি অধম

Satkahon - সবজান্তা তিন্নি -গল্প-১২

Satkahon – সবজান্তা তিন্নি -গল্প-১২

বন্ধুরা, পঞ্চকবির এক কবি রজনীকান্ত সেনের কথা আপনারা সকলেই জানেন।

সাধক কবি হিসেবেই সকলে তাঁকে চেনেন।

আজ আপনাদের জানাব কিভাবে জীবনের কঠিনতম দিনেও তিনি সঙ্গীতকে আশ্রয় করে বেঁচেছিলেন।

মাত্র পঁয়তাল্লিশ বছর বয়সেই তাঁর জীবনে নেমে আসে সন্তান শোক।

ম্যালেরিয়া জ্বরে আক্রান্ত দুই সন্তান জ্ঞানেন্দ্রনাথ ও শতদলবাসিনী সেদিন মৃত্যুশয্যায়।

সন্ধ্যের দিকে শতদলবাসিনী মারা গেলেন।

ঘর থেকে বেরিয়ে এসে হারমোনিয়াম নিয়ে গেয়ে চললেন…

“তোমারি দেওয়া প্রানে, তোমারি দেওয়া দুখ..তোমারি দেওয়া বুকে তোমারি অনুভব…তোমারি দুনয়নে তোমারি শোকবারি,তোমারি ব্যাকুলতা, তোমারি হা-হা রব!”

ঠিক এক বছর আগে পুত্র ভুপেন্দ্রনাথ মারা যাবার পর কবি এই গান লিখেছিলেন।

জ্ঞানেন্দ্রনাথ তখনও বেহুঁশ।

সকলে কবিকে ভিতরে যাওয়ার জন্যে অনুরোধ করছে কবি শুনছেন না।

অনেক রাতে উঠে তিনি বন্ধুকে বললেন, “একটিকে তো ভগবান গ্রহন করেছেন, আর একটিকে দেখি তিনি কি করেন”সেইবার বেঁচে উঠেছিলেন জ্ঞানেন্দ্রনাথ।

আঘাতের পর আঘাত তাঁর জীবনকে বিপর্যস্ত করে তুলেছিল। কিন্তু তিনি ছিলেন ঈশ্বরের কাছে সমর্পিত প্রান।

এত যন্ত্রণার পরও তিনি লিখেছেন…

“আমি অকৃতী অধম বলেও তো…কিছু কম করে মোরে দাও নি…যা দিয়েছ তারি অযোগ্য ভাবিয়া… কেড়েও তো কিছু নাওনি..”

গানটি শুনুন সংগীতশিল্পী সুপ্রতীক দাসের কন্ঠে
Satkahon - সবজান্তা তিন্নি -গল্প-১২

[তথ্যসুত্র: রানা‌ চক্রবর্তী]

বাংলা ভাষা,বাংলা সংস্কৃতির মধ্যে থেকেও আমরা বাংলার মানুষকে বা সংস্কৃতিকে কতটুকু জেনেছি ? অনেক গুণী ব্যক্তিদের জীবন কাহিনী আমাদের অনেকেরই অজানা। সাতকাহন সেই বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সাক্ষাৎকার নিয়ে আজ আপনাদের দরবারে।শুধু তাই নয় বাংলায় এমন অনেক কাজ হচ্ছে বা এমন অনেক নতুন প্রতিভা রয়েছে যারা প্রচারের অভাবে সামনে আসতে পারছে না। সাতকাহন তাদের জন্য একটা বড় জায়গা রেখেছে এই নিউজ পোর্টালে।বাংলা সংস্কৃতি বিকশিত হোক, পুরাতনকে সমাদর করার পাশাপাশি নতুন কেও বরণ করে নেওয়া হোক সমান ভালবাসায়। এই অঙ্গীকার নিয়েই সাতকাহনের জয়যাত্রা।

Team Satkahon

COPYRIGHT © 2020 SATKAHON

10 thoughts on “Satkahon – সবজান্তা তিন্নি -গল্প-১২ | আমি অকৃতি অধম”

Leave a Comment

Your email address will not be published.